• ঢাকা
  • রবিবার, ১৫ আশ্বিন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ; ০১ অক্টোবর, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ

Advertise your products here

Advertise your products here

ঢাকা  রবিবার, ১৫ আশ্বিন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ;   ০১ অক্টোবর, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ

পদ্মা সেতুর তথাকথিত দুর্নীতি, বিশ্বব্যাংকের ঋণ বাতিলের পর সবচেয়ে সরব যে দুই জন

Helal Taher
Daily J.B 24 ; প্রকাশিত: মঙ্গলবার, ২১ জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ০৬:৫৭ পিএম
পদ্মা সেতু , দুর্নীতি , বিশ্বব্যাংকের ঋণ বাতিল , ড. দেবপ্রিয় ভট্টাচার্য , ড. শাহদীন মালিক
ফাইল ছবি

পদ্মা সেতুর তথাকথিত দুর্নীতি, বিশ্বব্যাংকের ঋণ বাতিলের পর সবচেয়ে বেশি সরব ছিলেন এই ভদ্রনোক দুইজন।


আজকে ওই সময়ের ভদ্রনোকদের কি কি মন্তব্য ছিলো তা তুলে ধরব এক এক করে। 
সরকারের বিরুদ্ধে তখন এক রকম লুঙ্গিতে গিট্টু দিয়ে মাঠে ছিলেন উনারা সরকারের সমালোচনায়।
মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা যখন নিজস্ব অর্থায়নে পদ্মা সেতুর করা ঘোষণা দেয় তখন সেই সময়ে প্রথম আলোতে উনাদের দেওয়া মন্তব্য নিচে দেওয়া হলো।


ড. দেবপ্রিয় ভট্টাচার্যের বক্তব্য ছিলোঃ


সরকারের আয়-ব্যয়ের পরিস্থিতি বর্তমানে যা তাতে সম্পূর্ণভাবে রাষ্ট্রীয় অর্থে প্রকল্প ব্যয় নির্বাহ করা সম্ভব নয়। এ দেশের ব্যংকব্যবস্থায় বা পুঁজিবাজারে তারল্য পরিস্থিতি যা তাতে এ বিপুল পরিমাণ সম্পদ সমাবেশ সহজসাধ্য নয়। সর্বোপরি মনে রাখতে হবে আমাদের বৈদেশিক মুদ্রার মজুদ এমন নয় যে প্রকল্পের সমস্ত আমদানি ব্যয় আমরা দেশীয় মুদ্রায় মেটাতে পারব। এ ছাড়া অন্যান্য কারিগরি বিষিয় তো রয়েছেই। 
(প্রথম আলু ১ জুলাই ২০১২) 

তিনি আরও লিখেন অভিযোগ অস্বীকারে সরকারের মূল প্রবনতা, নিজস্ব অর্থায়নে সম্ভব নয় পদ্মাসেতুর নির্মাণ বেশ দৃঢ়ভাবে সেই দাবি করেন তিনি। 


ড. শাহদীন মালিকের বক্তব্য ছিলো


" আবেগ তাড়িত হয়ে অবাস্তব কথা বলছে সরকার। 
খোদ প্রধানমন্ত্রী যা বলেছেন তাঁর মন্ত্রীরা পরক্ষণেই বলছেন অন্য কথা। প্রায় সিব কথাই বহুলাংশে বাস্তবতা বিবর্জিত। আবেগ আক্রোশ বিদ্যাবুদ্ধিহীনতা তাড়িত৷ 
পদ্মা সেতু দেশি অর্থায়নে হবে না, সম্ভব নয়। 
বিশেষত যখন সৈয়দ আবুল হোসেনের মতো মন্ত্রীদের সরকার এত বেশি মূল্যায়ন করে। 

(প্রথম আলু ৩০ জুলাই ২০১২)

 

লেখকঃ Helal Taher

Daily J.B 24 / নিউজ ডেস্ক

খোলা-কলাম বিভাগের জনপ্রিয় সংবাদ